শেরে বাংলা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন : প্রধানমন্ত্রী

0
19
প্রধানমন্ত্রীঃ বিএনপি আমলের নির্বাচন এতটাই কলুষিত যে এ নিয়ে তাদের কথা বলার কোন অধিকার নেই

প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক শোষণ ও বঞ্চনাহীন, প্রগতিশীল, গণতান্ত্রিক এবং অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনের জন্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন।
শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের ৬০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যোমঙ্গলবার দেয়া এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন।

শেরে বাংলা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন : প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা বলেন, শেরে বাংলা বাংলাদেশ এর কৃষক সমাজের অর্থনৈতিক মুক্তি নিশ্চিত করতে আজীবন কাজ করে গেছেন। কৃষকদের অধিকার আদায়ে তিনি সব সময় সোচ্চার ছিলেন। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে একে ফজলুল হক দরিদ্র কৃষক এবং প্রজাদের স্বার্থ রক্ষায় কৃষি ঋণ আইন প্রজাস্বত্ব (সংশোধনী) আইনসহ বিভিন্ন আইন প্রণয়ন করেন।

শেরে বাংলা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন : প্রধানমন্ত্রী

তিনি বলেন, বাংলার গরিব-দুঃখী মানুষের জন্য তাঁর অসীম মমত্ববোধ, ভালবাসা এবং কর্মপ্রচেষ্টা মানুষকে সবসময় অনুপ্রাণিত করবে।
শেখ হাসিনা বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে তাঁর আদর্শিক ঐক্য ও রাজনৈতিক ঘনিষ্ঠতা ছিল।

 

শেরে বাংলা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন : প্রধানমন্ত্রী

প্রধান মন্ত্রী বলেন, জমিদারগণ রায়তদের ওপর যে আবওয়াব ও  সেলামি ধার্য করতেন, তিনি তার বিলোপ সাধন করেন। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব, উদার ও পরোপকারী স্বভাবের জন্য জনগণ তাকে ‘শেরে বাংলা’ বা ‘বাংলার বাঘ’ খেতাবে ভূষিত করেন।
বাণীতে তিনি অবিভক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী এবং বাংলার কৃষক ও মেহনতী মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু শেরে বাংলা এ কে (আবুল কাশেম) ফজলুল হক-এর ৬০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান এবং  বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

শেরে বাংলা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন : প্রধানমন্ত্রী

প্রধান’মন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছেন : মতিয়া চৌধুরী

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী এমপি বলেছেন, প্রধান’মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছেন।
মঙ্গলবার সকালে শেরপুরের নকলায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ হস্তান্তর এবং ঈদ উপলক্ষে প্রধা’নমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন। সাবেক কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, প্রধান’মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের নিরাপত্তা দিয়েছেন, দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছেন। শেখ হাসিনার লক্ষ্য, দেশে কোন ভূমিহীন ও গৃহহীন থাকবে না। তাই তৃতীয় পর্যায়ে অসহায়দের জমিসহ ঘর দেওয়া হচ্ছে। শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়, আর না থাকলে খাদ্যে সংকট হয়।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাঃ শিল্প কলকারখানাসহ প্রতিটি ভবনে অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে
তিনি আরও বলেন, আগে মানুষ জানতেই পারতো না, কখন ভিজিএফ আসলো, ভিজিডি আসলো, নগদ টাকা সহায়তা আসলো। পাওয়া তো অনেক দূরের কথা। এখন দেশে সেই অবস্থা নেই।
মতিয়া চৌধুরী বলেন, ভিজিএফ, ভিজিডি, নগদ টাকা সহায়তা যাই বলেন, সবই জনগণের ট্যাক্সের টাকা থেকে সংগ্রহ করা। তাই এগুলো আমি প্রকাশ্য দিবালোকে বিতরণ করতে পছন্দ করি। পেছন থেকে কেউ যেন আঙ্গুল তুলতে না পারে। প্রধা’নমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এমনটি চান।
তিনি দৃঢ়তার সাথে বলেন, দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই শেখ হাসিনা বারবার ক্ষমতায় আসছেন। দেশের উন্নয়ন করছেন। দেশের মানুষ গণতন্ত্রের স্বাদ উপভোগ করছেন।
অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মো. বোরহান উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, সহকারি কমিশনার কাউছার আহাম্মেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও দেখুনঃ