কুষ্টিয়ায় রোগীদের মাঝে খাবার বিতরণ করলো মেহেরপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবী কল্যাণ ট্রাস্ট

0
54
কুষ্টিয়ায় রোগীদের মাঝে খাবার বিতরণ করলো মেহেরপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবী কল্যাণ ট্রাস্ট।।

মোঃ তুহিন, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ “প্রতিহিংসা দূরে রাখি ভালোবাসার সমাজ গড়ি” এই স্লোগান নিয়ে মেহেরপুর জেলার অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মেহেরপুর স্বেচ্ছাসেবী কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে আজ শুক্রবার ( ১২ মার্চ) ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল কুষ্টিয়াতে চিকিৎসাধীন মেহেরপুর জেলার রুগীদের মাঝে দুপুরের খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

জেলা স্বেচ্ছাসেবী কল্যাণ ট্রাস্টের উদ্যোগে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মেহেরপুর জেলার ৩০ জন রুগীর মাঝে দুপুরের খাবার পৌঁছে দিয়েছে এবং রুগীদের সার্বিক খোঁজ খবর নিয়েছে জেলা স্বেচ্ছাসেবী কল্যাণ ট্রাস্টের প্রতিনিধিদল।

উক্ত কর্মসূচি বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন টিম প্রধান সাহাবুদ্দীন শেখ, তার সহযোগী হিসেবে ছিলেন তরিকুল ইসলাম, তুহিন, রকি, বাবুল, আরাফাত ও মোবারক হাসান সহ প্রমুখ।

পরিবর্তনের মেহেরপুর গ্রুপের মুখপাত্র সাইদুর রহমান জানান, প্রতিমাসের প্রথম বা দ্বিতীয় শুক্রবার কুষ্টিয়া, রাজশাহী এবং ঢাকাতে চিকিৎসাধীন মেহেরপুর জেলার রুগী ও স্বজনদের মাঝে দুপুরের খাবার বিতরণ ও সার্বিক খোঁজ খবর নেওয়া ও জেলার প্রতিটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোর কাজের বিচার করে প্রতিমাসে অনুদান দিয়ে উৎসাহ প্রদান করতে কাজ চালিয়ে যাবে পরিবর্তনের মেহেরপুর কর্তৃক বাস্তবায়িত মেহেরপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবী কল্যাণ ট্রাস্ট।

পরিবর্তনের মেহেরপুর গ্রুপের মুখপাত্র সাইদুর রহমান তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ১৩ হাজার এর বেশি। সাইদুর রহমান বলেন, আমি শুধু পরিবর্তন চেয়েছি মানুষের মধ্যে এবং একটি ভালবাসার পৃথিবী গড়তে চেয়েছি। অনেক ভালোবাসি আপনাদের, আমি ভালোবাসি জেলার ধূলিকণা তাই দোয়া করবেন যেন আমি সবসময় কাজ করে যেতে পারি মানুষের কল্যাণে আপনাদের সাথে। কোনো খাবার সরবরাহ সেবা নয়। প্রতিটি খাবারে মিশে থাকে দায়িত্বরত একজন মানুষের জন্য আরেকজন মানুষের শ্রম, ভালোবাসা ও স্নেহ।’

এছাড়াও তিনি বলেন, মাসের প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহের শুক্রবারে দুপুরের খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন। আগামী শুক্রবার রাজশাহী সরকারি হাসপাতালে এমন উদ্যোগ গ্রহনের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।
সেই সাথে ট্রাস্টের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here