ঘাটাইলে আরএমএস ইটভাটাকে এক লাখ টাকা জরিমানা

0
12
ঘাটাইলে আরএমএস ইটভাটাকে এক লাখ টাকা জরিমানা

সাইফুল ইসলাম, টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে ইটভাটায় কাঠ দিয়ে ইট পোড়ানো ও কাগজ পত্র ঠিক না থাকার দায়ে আরএমএস ইটভাটাকে ১৪ ধারায় এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজকে বৃহস্পতিবার (৩১ শে ডিসেম্বর) ঘাটাইল উপজেলায় পুলিশের সহযোগীতায় ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জন কুমার সরকার এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছেন।

এর আগে পরিবেশের ক্ষতি করে জ্বালানি হিসেবে কোনরকম কয়লা ছাড়াই সম্পূর্ণ খড়ি দিয়ে ইটভাটা চলছে উপজেলার দেউলা বাড়ি ইউনিয়নের রতন বরিস এলাকার আর এস এম-ব্রিকস ভাটায় জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে হাজার হাজার মণ খড়ি।

ঐ ইটভাটায় গত শনিবার (২৬ শে ডিসেম্বর) সরেজমিনে পরিদর্শন করে জানা যায়, “ইটভাটাগুলোতে শুধুমাত্র কাঠ পোড়ানো হচ্ছে। এছাড়াও ভাটার চারদিকেও মজুদ আছে আরও কয়েক হাজার মণ খড়ি ও কাঠ।

ইটভাটার শ্রমিক ও স্থানীয়রা জানান, “এইতো মাসখানিক পূর্বেও এ বছর ইটভাটার সিজন শুরু হয়েছে। এতে শুরু থেকেই কয়লার বদলে কাঠ পোড়ানো হচ্ছে এই ভাটায়।”

এমনকি আশেপাশের সকল ভাটা ইট পোড়ানোর কাজে কয়লা ব্যবহার করলেও এই ভাটায় তা না করে সরকারি নির্দেশনা না মেনে শুধু গাছের খড়ি ব্যবহার করা হচ্ছে এবং কয়লা ব্যবহার না করে কাঠ ব্যবহার করা পুরোপুরি অবৈধ ও নিয়ম বর্হিভূত স্বীকার করা সত্ত্বেও কয়লা ব্যবহার না করে কাঠ দিয়েই ইট পোড়ানোর কারন কয়লা দিয়ে ইট পোড়ানো যাচ্ছে না। সেজন্য বাধ্য হয়েই কাঠ-খড়ি ব্যবহার করতে হচ্ছে। 


ইটভাটার ম্যানেজার সুমন বলেন, “সবগুলো খড়ি ভাটার জন‍্যই এবং আমরা প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই ভাটাই কাঠ জ্বালাই আপনারা (সাংবাদিকরা) যা ইচ্ছা তাই করেন আমরা লাকড়ি জ্বালাবো আমাদেরও লোক আছে।

আর এ বিষয়ে ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অঞ্জন কুমার সরকারকে বিষয়টি অবগত করা হলে তিনি বলেন,”ঐসব লোকদের বিরুদ্ধে আইনগত ভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here