ছড়িয়ে পড়া ভাইরাল ভিডিও চিত্রের ভাল-মন্দ দিক

0
4
ছড়িয়ে পড়া ভাইরাল ভিডিও চিত্রের ভাল-মন্দ দিক

শাহেদসরোওয়ার্দী, দৈনিক বার্তা ২৪ ডেস্ক: গত ২ সেপ্টেম্বর নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে এক নারীকে(৩২) বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায়, একই এলাকার ১৪-১৫ জনের একদল বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।গত ৪ অক্টোবর রোববার দুপুরে ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা প্রশাসনের নজরে আসে এবং ঐ দিন বিকেলেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় অভিযুক্ত আবদুর রহিম(২৭) নামের এক যুবককে আটক করেছে।

প্রতিদিনই এমন নারী নির্যাতনের ঘটনা ঘটেই চলেছে।বেড়েই চলেছে নির্যাতনের সংখ্যা।ক্ষমতাসীন দল ও রাজনৈতিক ছত্রছায়াতে থেকে কিছু মানুষ নামক অমানুষ ক্রমেই নৃশংস ও পাশবিক হয়ে উঠছে।এ নিয়ে সাধারণ জনগণ খুবই আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে।সমাজের প্রতিটি মানুষই যেন তাদের স্ত্রী,কন্যা ও বোনকে নিয়ে আতঙ্কিত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যাণে নানা ধরনের অপরাধ ও নারী নির্যাতনেরর ঘটনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এবং তা প্রশাসনের নজরে পড়ছে।যা দ্রুতই আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে দ্রুতই অপরাধীদের আইনের আওতাতে আনতে বা গ্রেফতারে সহযোগিতা করছে।সাধারণ জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি পাচ্ছে, গড়ে উঠছে সামাজিক আন্দোলন।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নারীকে বিবস্ত্র করে পাশবিক নির্যাতনের ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে সরিয়ে নেয়া হলেও কেউ কেউ সেই ভিডিও সংরক্ষণ করে তা এখনও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েই চলেছে যা নির্যাতিতাকে সামাজিকভাবে অসম্মানিত ও হেয় প্রতিপন্ন করছে।নির্যাতিতা না নির্যাতনকারীর ছবি প্রকাশ করে তাদের আইনের আওতায় আনা জরুরী বলে মনে করেন অনেকেই।

কেউ কেউ মত প্রকাশ করে বলেছেন,অধিকাংশ মানুষ সত্যিকার অর্থে বিচার দাবীতে ভিডিও চিত্রটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ালেও, কিছু মানুষ প্রতিবাদের নামে এসব ভিডিও চিত্র অসৎ উদ্দেশ্যে ও চর্মচক্ষুকে লালসাপুষ্ট করতে আর বিকৃত কামনাকে চরিতার্থ করতে এমন ভিডিও এখনও ছড়িয়েই যাচ্ছে।নারী নির্যাতনের এসব ভিডিওচিত্র বা ছবি কিছু বিকারগ্রস্ত মানুষকে নারী নির্যাতনে উৎসাহ যোগাবে বলে অনেকেই মতামত প্রদান করেছেন।সাধারণ জনগণ দ্রুত এ ভিডিও অপসারণ করে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের দাবী জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here