টাঙ্গাইলের নাগরপুরের জমিদার বাড়ি দখলমুক্ত করলেন প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের একটি বিশেষ টিম

0
3
টাঙ্গাইলের নাগরপুরের জমিদার বাড়ি দখলমুক্ত করলেন প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের একটি বিশেষ টিম

সাইফুল ইসলাম, টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ দীর্ঘদিন প্রতিক্ষার পর প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের একটি বিশেষ টিমের নেতৃত্বে দখল মুক্ত করা হয়েছে টাঙ্গাইলের নাগরপুরের জমিদার বাড়ি। সোমবার দুপুরের পর থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ উদ্বার কাজ পরিচালনা করা হয়।

টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সিনিয়র কমিশনার উপমা ফারিসা ও নাগরপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর নেতৃত্বে নাগরপুর মহিলা কলেজের ৮টি ও নাগরপুর শহীদ সামছুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দখলে থাকা ১টি ভবন উদ্ধার করা হয়। আর এসব ভবনে স্কুল কলেজের শিক্ষকরা তাদের পরিবারসহ দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছিলেন। এর পুর্বে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের পরিচালক ভবনগুলো পরিদর্শন করেন এবং জনজীবনের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় ৫ নভেম্বর জেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন।

এরপরে জেলা প্রশাসনের নির্দেশে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান নাগরপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও শহীদ সামছুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ভবন খালি করে দেওয়ার জন্য নোটিশ প্রদান করেন। নাগরপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও শহীদ সামছুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক জেলা প্রশাসকের কাছে সময় চান । পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ১৬ নভেম্বর পুনরায় নোটিশ প্রদান করেন।

সোমবার (৩০ শে নভেম্বর) বিকেলে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সিনিয়র কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপমা ফারিসা, নাগরপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনিসুর রহমান আনিস ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে যান। আর এ সময় দখলে থাকা ভবনগুলো দখল মুক্ত করে সিলগালা করা হয়। এ দিকে জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে সিলগালাকৃত জরাজীর্ণ ভবন গুলোতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে অনুপ্রবেশ না করার জন্য সর্তককরণ নোটিশ সাটানো হয়।

আর এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর জানান, “দুর্ঘটনা এড়াতে জনস্বার্থে জরাজীর্ণ ও ঝুঁকিপুর্ণ ভবনে থাকা লোকদের ভবন ছেড়ে দেওয়ার একাধিকবার তাগিদ দেওয়া হয়। অবশেষে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সোমবার উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here