নাটোরের গুরুদাসপুরে স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধু কাতরাচ্ছেন হাসপাতালে

0
32
নাটোরের গুরুদাসপুরে স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধু কাতরাচ্ছেন হাসপাতালে

রাশিদুল ইসলাম, (নাটোর) প্রতিনিধি: খালেদা আক্তার জুঁই (২২) নামের এক গৃহবধূকে শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী রিপনের বিরুদ্ধে। আহত গৃহবধূ বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। ভুক্তভোগি ওই গৃহবধুর বাড়ি নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামে।

স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালে রিপনের সাথে জুঁইয়ের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে জনি নামের ৪ বছরের এক পুত্র সন্তানও রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই ভ্যান চালক স্বামী রিপন যৌতুকসহ বিভিন্ন অজুহাতে জুঁইকে মারধর করতো। সন্তানের মুখের দিকে চেয়ে সে নিরবে স্বামীর অত্যাচার সহ্য করে আসছিল। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে কাঠের বাটাম দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে রিপন। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় জুঁইকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

গুরুদাসপুর আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ রবিউল করিম জানান, গৃহবধূ জুঁইয়ের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। তাকে চিকিৎসার পাশাপাশি বেশ কিছুদিন রেষ্টে এ থাকতে হবে। জুঁইয়ের পিতা জহুরুল ইসলাম বলেন, অনেক অত্যাচার সহ্য করেছে আমার মেয়ে। বিচারের দাবিতে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত রিপনের কাছে জানতে চাইলে রিপন স্ত্রীকে পিটানোর কথা স্বীকার করে বলেন, সাংসারিক কাজ নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে রাগান্বিত হয়ে কয়েকটি লাঠিপেটা করা হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here