পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনঃ সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায়

0
17
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) গ্রুপ থেকে বাংলাদেশের সুষ্ঠুভাবে উত্তোরণে ঢাকা নরওয়ের সার্বিক সমর্থন কামনা করেছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনঃ সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায়

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আমাদের পারস্পরিক স্বার্থে যেমন লজিস্টিক, শিপিং, গভীর সমুদ্রে মাছ ধরা, নবায়নযোগ্য শক্তি, বাড়ি নির্মাণ সামগ্রী এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, খাতে  নরওয়ের বর্ধিত উপস্থিতি দেখতে চাই।’

বাংলাদেশ-নরওয়ের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োাজিত আজ এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মোমেন এসব কথা বলেন।  এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন  নরওয়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যানেকিন হুইটফেল্ট।
বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নরওয়েকে ব্লু -ইকোনমিকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশকে গবেষণা ও উদ্ভাবনের সম্ভাব্য অংশীদার হিসেবে বিবেচনা করার আহ্বান জানান।

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

তিনি বলেন,‘ রোহিঙ্গা ইস্যুসহ বর্তমান মেয়াদে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য হিসেবে নরওয়ের গঠনমূলক ভূমিকা আমরা স্বীকার করছি।’
ডঃ মোমেন বলেন, বাংলাদেশ এবং নরওয়ে  উভয় দেশই  বহুপাক্ষিকতার একনিষ্ঠ সমর্থক এবং পররাষ্ট্রনীতির স্বাধীনতা বজায় রাখে।  তিনি আরও বলেন, যে ক্রমবর্ধমান অস্থির বিশ্বব্যবস্থার মধ্যে শান্তি কূটনীতির অন্বেষণে ঢাকা নরওয়ের একটি নির্ভরযোগ্য অংশীদার।’

ড. মোমেন বলেন, নারী, শান্তি ও নিরাপত্তা বিষয়ক প্রচারণায়  বাংলাদেশ নরওয়ে  এবং অন্যান্য অংশীজনের  সাথে একত্রে কাজ করতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও নরওয়ে  আন্তর্জাতিক এবং স্থানীয়  উভয়  প্রেক্ষাপটে নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে এগিয়ে  যাওয়ার লক্ষে এগিয়ে যাচ্ছে।

 

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

তিনি বলেন, ‘আমাদের  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, আমাদের নারী ও মেয়েরা  জীবনের সব ক্ষেত্রে তাদের দক্ষতার  ছাপ রেখে চলছে।’
প্রথম ইউরোপীয়  দেশ হিসেবে নরওয়েই ১৯৭২ সালে স্বাধীন বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয় বলে তিনি কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমাদের  জাতি একটি কঠিন অবস্থার মধ্য দিয়ে পুনর্গঠন ও পুনর্বাসনের প্রচেষ্টা শুরু করেছিল। সে সময় নরওয়ের সরকার ও জনগণ আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে।’

 

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

তিনি বলেন, বছরের পর বছর ধরে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের গতিশীলতা ঐতিহ্যগত উন্নয়ন সহযোগিতা থেকে পারস্পরিক উপকারী অর্থনৈতিক অংশীদারিত্বে স্থানান্তরিত হয়েছে।
মন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমরা বর্ধিত বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং সামুদ্রিক সহযোগিতার মাধ্যমে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে আরও গতিশীলতা আনতে  আমাদের চুক্তি  নবায়ন করেছি।’
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নবনির্বাচিত নরওয়ে  সরকারের সঙ্গে রাজনৈতিক সম্পৃক্ততার গতি বজায় রাখতে  বাংলাদেশ অধীর আগ্রহে অপেক্ষা  করছে।

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

 

এলডিসি উত্তর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কর্পোরেট করহার কমানোর প্রস্তাব ডিসিসিআইয়ের

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি রিজওয়ান রাহমান বলেছেন, এলডিসি উত্তরণের পর বাংলাদেশকে পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে বেশ প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হতে হবে। এমতাবস্থায় আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের পাশাপাশি পিটিএ ও এফটিএ স্বাক্ষরের ক্ষেত্রে আরও মনোযোগি হতে হবে এবং  সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে নেগোশিয়েশনের দক্ষতা বাড়ানো জরুরী। একইসাথে তিনি কর্পোরেট করহার কমানোর আহবান জানান।

তিনি দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে বিদ্যমান করকাঠামো যুগোপযোগীকরণ ও ক্রস-বর্ডার বাণিজ্য সম্প্রসারণে নীতি সহায়তা প্রদানের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

রোববার রাজধানীর মতিঝিলে সংগঠনের কার্যালয়ে ডিসিসিআই আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি ২০২২ সালে ডিসিসিআইয়ের কর্মপরিকল্পনা উপস্থাপন করেন। তিনি জানান, এ বছর ঢাকা চেম্বার সিএমএসএমই,বেসরকারি বিনিয়োগ ও এফডিআই, রপ্তানি বহুমুখীকরণ,সমুদ্র অর্থনীতি, দক্ষতা উন্নয়ন, ডিজিটাল এনগেইজমেন্ট, কর ব্যবস্থাপনা এবং এলডিসি উত্তোরণ বিষয়ের উপর গুরুত্বারোপ করবে।

রিজওয়ান রাহমান বলেন, কোভিড মহামারির কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিশেষ করে সিএমএসএমইখাতের উদ্যোক্তাদের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক। তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য আর্থিক সহায়তা প্রাপ্তির বিষয়টি আরও সহজ করার প্রয়োজন। বৈশি^ক প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকার জন্য মানবম্পদের দক্ষতা উন্নয়নের কোন বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।এ ব্যাপারে গবেষণা ও উন্নয়ন খাতে আরও বেশি হারে বিনিয়োগে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

কর্পোরেট করের বিষয়ে তিনি বলেন, এলডিসি উত্তোরণের পূর্বে বাংলাদেশের কর্পোরেট করহার আঞ্চলিক দেশসমূহের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ করা প্রয়োজন। এলক্ষ্যে তিনি বিদ্যমান কর্পোরেট কর ২০২২-২৩ এবং ২০২৩-২৪ অর্থবছরে যথাক্রমে ৫ শতাংশ ও ৭ দশমিক ৫ শতাংশ হারে ক্রমান্বয়ে হ্রাসের আহ্বান জানান।

রিজওয়ান রাহমান বলেন, এলডিসি উত্তোরণের পর আমাদের রপ্তানিমুখী পণ্যের উপর শুল্ক হার বর্তমানের চেয়ে ৬ থেকে ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেতে পারে। ফলে এখন থেকে আমাদের পণ্যের বহুমুখীকরনের সাথে সাথে বাজার সম্প্রসারণের উপর মনোযোগি হতে হবে। এছাড়া রপ্তানি বৃদ্ধিতে আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের বাজারের প্রতি আমাদের আরও মনোযোগী হওয়ার প্রস্তাব করেন তিনি।

সুষ্ঠুভাবে এলডিসি উত্তরণে ঢাকা নরওয়ের সমর্থন চায় : মোমেন

এছাড়াতিনি অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে সকল ধরনের সেবা নিশ্চিত করার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান।
সমুদ্র অর্থনীতিকে বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত সম্ভাবনাময় হিসেবে উল্লেখ করে এই ব্যবসায়ী নেতা বলেন, বাংলাদেশের জিডিপিতে এখাতে অবদান রয়েছে ৩ দশমিক ১ শতাংশ এবং এ সম্ভাবনাকে সঠিকভাবে কাজে লাগানোর জন্য একটি কার্যকর রূপকল্প প্রণয়নের দাবী জানান।
ডিসিসিআই উর্ধ্বতন সহ-সভাপতি আরমান হক এবং সহ-সভাপতি মনোয়ার হোসেন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।