মধুপুরে ৭ মাসের শিশু পুত্র সন্তান রেখে উধাও গৃহবধূ

মধুপুরে ৭ মাসের শিশু পুত্র সন্তান রেখে উধাও গৃহবধূ

সাইফুল ইসলাম, মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর উপজেলার পিরোজপুর গ্রামে ৭ মাসের শিশু পুত্র সন্তান রেখে পালিয়েছেন এক গৃহবধু।

পিরোজপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মো: আবু জাফরের মেয়ে জাহানারা বেগমের (২৫) গোপালপুর উপজেলার মিশ্রপট্রি গ্রামের সেকান্দর আলীর ছেলে মো: খলিলুর রহমানের সাথে বিগত ৫ বৎসর পূর্বে তাদের বিবাহ হয়। বিবাহিত জীবনে তাদের ঘরে জোনায়েত নামে ৭ মাস বয়সী একটি পত্র সন্তান রয়েছে।

গৃহবধু জাহানারা তার শিশু সন্তানকে নিয়ে তার পিতার বাড়ীতে বেড়াতে আসেন। স্বামী খলিলুর রহমান জানান, “আমার স্ত্রী পিরোজপুর তার বাপের বাড়ীতে বেড়াতে গেলে একই এলাকার মো: ইদ্রিছ আলীর ছেলে মো: সোলাইমান (সোলাই) তাকে নানা ভাবে ফুসলিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে থাকে। এক পর্যায়ে সুপরিকল্পিত ভাবে আমার স্ত্রী জাহানারাকে নিয়ে রাতের আধারে আমার শিশু সন্তানকে ঘুমন্ত অবস্থায় রেখে সোলাইমানের সাথে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় আমার স্ত্রীকে দেওয়া চার ভরি ওজনের স্বর্ণ অলংকার নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য দুই লক্ষ টাকা।”

আর এ দিকে মেয়ের পিতা আবুজাফর জানান, “আমার মেয়ে রাতের আধারে পালিয়ে যাওয়ার সময় আমার আনারস বিক্রি করে ঘরে রাখা তিন লক্ষ টাকা সু-কৌশলে নিয়ে গেছে। আর এ ব্যাপারে এলাকার মাতাব্বরদেরকে ঘটনাটি জানালে সোলাইমান এলাকায় প্রভাবশালী থাকার দরুন আমার পক্ষে কেহ কোন কথা বলতে নারাজ।”

তিনি আরও বলেন, “আর এ ব্যাপারে আমার জামাতা খলিলুর রহমান টাঙ্গাইল কোর্টে একটি মামলা করেছেন।”

খলিলুর রহমান জানান, “আমি এলাকায় কোন বিচার না পেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছি। মোকদ্দমা নং সি,আর-১৯৭/২০২০।”

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে