রূপগঞ্জে এশিয়ান হাইওয়ে রোডে ডাকাতি, ছুড়িকাঘাতে আহত ২, ২ লক্ষাধিক টাকা লুট

0
38
রূপগঞ্জে এশিয়ান হাইওয়ে রোডে ডাকাতি, ছুড়িকাঘাতে আহত ২, ২ লক্ষাধিক টাকা লুট

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে এশিয়ান হাইওয়ে রোডের কুশাব এলাকায় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ২৭ জানুয়ারী বুধবার ভোর ৫ টার দিকে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতদের কবলে পড়া অটোরিকশায় থাকা যাত্রী পিতলগঞ্জের সুমন মিয়া জানান, তারা কাঞ্চন বাজার থেকে ৭জন কাঁচা তরকারী বিক্রেতা গাউছিয়া কাঁচামাল আড়ৎ এর উদ্দেশ্য রওয়ানা দেন। ভোর ৫ টার দিকে কুশাবো এলাকায় পৌছালে
পেছন দিক থেকে একটি পিকআপ ভ্যান অটোরিকশাকে ধাক্কা দিয়ে সড়কের পাশে নিয়ে যায়। এ সময় ওই পিকআপ থেকে দ্রæত ৪/৫ জন দেশীয় অস্ত্র ও পিস্তল নিয়ে অটোরিকশায় থাকা যাত্রীদের জিম্মি করার
চেষ্টা করে। কিন্ত চালক ছিদ্দিক মিয়া পাশ কেটে চলে যেতে চাইলে তাকে ছুড়িকাঘাত করে ডাকাতরা। এ সময় তার পাশে বসা যাত্রী জসিম মিয়াকেও ছুড়িকাঘাত করে গুরুতর আহত করে। এ সময় তারা রক্তাক্ত হলে পেছনে থাকা যাত্রীরা তাদের সাথে থাকা নগদ টাকা ও মোবাইল ডাকাতদের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হয়। এর ফাঁকে ৭জন যাত্রীর মাঝে পিতলগঞ্জের মানিক গাজীর ছেলে ইমরান নাজিমুদ্দিনের ছেলে রিফাত
অটোরিক্সা থেকে দ্রæত লাফিয়ে পড়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

সুমন মিয়া আরো জানান, ডাকাতদের হাতে সব তুলে দিলে তারা পিকআপ নিয়ে প‚র্বাচলের দিকে চলে যায়৷ যাবার সময় পিকআপ ভ্যানের নাম্বার ঢাকা মেট্টো ১৬৩১ খেয়াল করতে পারলেও বাকি সংখ্যাগুলো খেয়াল
করতে পারেন নি বলে জানান। তাদের মাঝে পালিয়ে আসা ইমরান জানান, ডাকাতরা জসিম ও ছিদ্দিককে ছুড়িকাঘাত করে চলে গেলে অন্য যাত্রীরা আহতদের ঢাকা মেডিকেলের চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়৷
অপর যাত্রী পিতলগঞ্জের খালেক মিস্ত্রির ছেলে সুরুজ মিয়া জানান, অটোরিকশায় থাকা সবাই আড়ৎ এ যাচ্ছিলেন কাঁচামাল কেনার জন্য৷ তাদের সবার পকেটেই টাকা ছিল। ওই টাকা ছিনিয়ে নিতেই ডাকাতদল

হামলা করেছে। চালক ছিদ্দিক ও সামনে বসা যাত্রী জসিমকে ছুড়িকাঘাত করে সবাইকে জিম্মি করে ফেলে। পরে সবার কাছ থেকে আনুমানিক ২ লাখ টাকা ও সবার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়েছে ডাকাতরা৷ তিনি আরো জানান, তার ৩০ হাজারসহ জুলহাস মিয়ার ছেলে ফয়সালের টাকাও ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে। রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মুহসিনুল কাদেও বলেন, এ ব্যাপারে কেউ থানায় কোন অভিযোগ জানানো হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here